৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ থানায় আসতে গ্রাম্য মাতবরদের বাধা

0
136
গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি:
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, থানায় অভিযোগ দিতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে গ্রাম্য টাউট মাতবরেরা।
জানা গেছে, গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার তালুককানুপুর ইউনিয়নের সুন্দইল গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার আব্দুস সামাদের কন্যা সমস পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রীকে একই গ্রামের আমজাদের ছেলে মুন্না মিয়া (১৬) তার সহপাঠি সাহেব মিয়ার ছেলে আবু সাঈম (১৫), আনতাজের ছেলে আরিফ হোসেন (১৭), আজাহার আলীর ছেলে লাবিব মিয়া (১৬) ও মতিয়ারের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক (১৪) গত ১৪ মে রাত অনুমান পৌনে ৮ টার দিকে ধর্ষিতা ওই ছাত্রীকে বাড়ী থেকে চাকু’র মূখে হত্যার ভয় দেখিয়ে উঠে নিয়ে যেয়ে বাড়ীর পাশে আখের ক্ষেতে মুন্না মিয়া তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় স্থানীয় লোকজন মসজিদে তারাবি নামাজ পড়তে যাওয়ার সময় এদের আনা গোনা টের পেলে ধর্ষিতাকে ছেড়ে সবাই পালিয়ে যায়। প্রাণ ভয়ে ধর্ষিতা ওই ছাত্রী একই গ্রামে তার বড় ভাইয়ের শুশুড়ের বাসায় যেয়ে উঠে। এ দিকে ধর্ষিতার পরিবার খোঁজাখুজির এক পর্যায়ে ওই বাড়ী থেকে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসলে সকল ঘটনা পরিবারের প্রধান মায়ের কাছে ওই ধর্ষিতা ছাত্রী জানান। এ বিষয়ে ওই পরিবার থেকে থানায় অভিযোগ দেওয়ার কথা বললে স্থানীয় টাউট মাতবরেরা মিমাংসার কথা বলে তাদের আটকে রেখে আসামীদের পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করে বলে ধর্ষিতার পরিবার সুত্রে জানা গেছে।
এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আফজাল হোসেনকে ধর্ষণের বিষয়ে অবহিত করলে তিনি জানান অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এ দিকে ন্যায় বিচারের স্বার্থে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টিকারীদের কবল থেকে ধর্ষিতা ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে পুলিশ প্রশাসনের জরুরি আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছেন সচেতন মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here