শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় ‘শেরে-বাংলা গোল্ড মেডেল-২০১৯’ পেলেন ভেড়ামারার বিজেএম কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মোঃ আসলাম উদ্দীন

0
902

শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখায় কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলার বিজেএম কলেজের অধ্যক্ষ জনাব মো: আসলাম উদ্দীনকে ‘শেরে-বাংলা গোল্ড মেডেল-২০১৯ ও সনদ প্রাপ্ত হয়েছেন। মেডেল ও সনদ প্রদান করেছে ঢাকাস্থ ‘শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হক গবেষণা পরিষদ’। এ উপলক্ষ্যে গত ২৭ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ সন্ধ্যায় ঢাকার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন অডিটোরিয়ামে এক বর্ণাঢ্য গুণীজন সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে শেরে বাংলা এ. কে. ফজলুল হক গবেষণা পরিষদ। সংস্থার প্রধান উপদেষ্টা ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সাবেক তথ্য সচিব সৈয়দ মার্গুব মোরশেদ (শেরে বাংলার দৌহিত্র)এর সভাপতিত্বে অনষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সামাজিক ও শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য দেশের বিভিন্ন ব্যক্তিদের মাঝে স্বর্ণপদক প্রদান করেন সাবেক প্রধান বিচারপতি এম তাফাজ্জল ইসলাম। অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক ছিলেন, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রি ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইবাইস ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ, প্রখ্যাত লালন সংগিত শিল্পী, লালন কন্যা ফরিদা পারভীন ও এশিয়ান গ্রুপ ও এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান শিল্পপতি হারুন অর রশিদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, শেরে বাংলা এ.কে. ফজলুল হক গবেষণা পরিষদের মহাসচিব মোঃ আর কে রিপন। ফয়সাল আহম্মেদ ফয়সালের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, জাগো বাংলাদেশ এর সভাপতি ও বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ খান, জাগো বাংলাদেশ গার্মেন্টস ফেডারেশনের সভাপতি বাহার সুলতান বাহার ও বাংলাদেশ আওয়ামী ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি মেহেদী হাসান প্রমুখ।  ১৯৯৩ সালে যোগদান করে বিজেএম কলেজের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ মোঃ আসলাম উদ্দীন জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহে একটানা পাঁচবার উপজেলার শ্রেষ্ঠ এবং একবার কুষ্টিয়া জেলার শ্রেষ্ঠ অধ্যক্ষ মনোনীত হন। তিনি স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকার একজন নিয়মিত কলাম লেখক। গত ২০১৭, একুশের গ্রন্থ মেলায় তাঁর একটি সৃজনশীল লেখা ‘যে সময়ের যে কথা’ নামে একটি বই প্রকাশিত হয়। উল্লেখ্য যে, মোঃ আসলাম উদ্দীন ইতিপূর্বে বাংলাদেশ ফুলকুঁড়ি ফাউন্ডেশন কর্তৃক  প্রদত্ত ‘বঙ্গবীর ওসমানী পদক-২০১৭’ ও বেসরকারি সংস্থা স্বাধীনতা সংসদ কর্তৃক  প্রদত্ত ‘হিউম্যান রাইটস্ শাইনিং পার্সোনালিটি এ্যাওয়ার্ড-২০১৭’ অর্জন করেন। নম্র, ভদ্র, বিনয়ী সদালাপী ও সুবক্তা এই মানুষটি ১৯৬১ সালের ৪ জুলাই কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় বাহাদুরপুর ইউনিয়নের গোসাইপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। আসলাম উদ্দীন বাহাদুরপুর(মাধবপুর) সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শিক্ষা জীবন শুরু করে সর্বশেষ ১৯৮৭ সালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন। তাঁর পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য নায়েম, বিয়াম ও এইচ এস টিটি আই খুলনা থেকে একাধিকবার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম মোঃ রফিকুল ইসলাম ও মাতার নাম মরহুমা মোছাঃ হালিমা খাতুন। ছেলে আলতামাস আসলাম নিউটন আইনের ছাত্র ও মেয়ে নিলা মনি  এসএসসি পরীক্ষার্থি,  স্ত্রী  মিসেস ফ্লোরা আসলাম পেশায় একজন শিক্ষিকা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here