শাহজাদপুরে বিকাশ লিঃ এর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ

0
627
জহুরুল ইসলাম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের পৌর এলাকার সমবায় বাজারের স্বত্ত্বাধীকারী মোঃ আব্দুর রাজ্জাক। দীর্ঘদিন ধরে বিকাশের এজেন্ট ও সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস এর এজেন্ট হিসেবে কাজ করে আসছে। গত বুধবার (২০ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৪ টার সময় আব্দুর রাজ্জাকের মোবাইলে বিকাশের হেল্প সেন্টারের ১৬২৪৭ নম্বর থেকে একটি কল আসে।
ওই নাম্বার থেকে আব্দুর রাজ্জাকে জানানো হয়, বিকাশের সার্ভার আপডেটের কাজ চলছে তাই তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন। তখন আব্দুর রাজ্জাকের সন্দেহ হলে তাদের কোন তথ্য দিতে অস্বীকার করে। পরে ওই নাম্বার থেকে বিকাশের হেল্প সেন্টারের পরিচয়দানকারী প্রতিনিধি স্থানীয় বিকাশের ডিস্ট্রিবিউটরের সাথে কথা বলতে বলেন। তখন হ্যালো শাহজাদপুর এর কর্ণধার উত্তম কুন্ডু, ম্যানেজার মোঃ ফিরোজ ও সুপারভাইজার মোঃ দিপু এর সাথে তাদের ব্যবহৃত বিটুবি নাম্বার ০১৭৪২ ৮৮৪১১০ থেকে কথা বলে নিশ্চিত করে যে প্রকৃত পক্ষেই বিকাশের সার্ভারের কাজ চলছে। তখন আব্দুর রাজ্জাক হ্যালো শাহজাদপুরের কর্ণধার উত্তম কুন্ডু সাথে কথা বলে আশ্বস্ত হয়ে তাদের নির্দেশনা মতে কাজ করে।
হেল্প সেন্টার প্রতিনিধির নির্দেশনা অনুযায়ী আব্দুর রাজ্জাক বিভিন্ন পর্যায়ে তার এজেন্ট ০১৮৬৪ ৩৩৭৫৭৬ নম্বরে ৭৬ হাজার টাকা লোড করে। টাকা লোড করার পূর্বে তার বিকাশ একাউন্টে থাকা ৭৯ হাজার ৭৬৩ টাকা মিলে সর্বমোট ১ লক্ষ ৪৯ হাজার ৭৬৩ টাকা জমা হয়। অথচ গোপন পিন নাম্বার ছাড়াই সার্ভার আপডেট এর কাজ শেষ হওয়ার পরই উক্ত আব্দুর রাজ্জাকের বিকাশ একাউন্ট থেকে সব টাকা উধাও হয়ে যায়।
ঘটনার পর ওই দিন রাত ৯টার সময় হ্যালো শাহজাদপুর সেন্টারে গিয়ে বিষয়টি অবহিত করলে তারা কোন সন্তোষজনক জবাব না দিয়ে আপোষ মিমাংশার প্রস্তাব দেয়। পরে আপোষ মিমাংশা না করায় উক্ত আব্দুর রাজ্জাক বাদী হয়ে বিকাশ লিঃ এবং হ্যালো শাহজাদপুরের কর্ণধার উত্তম কুন্ডু, ম্যানেজার মোঃ ফিরোজ ও সুপারভাইজার দিপুর বিরুদ্ধে শাহজাদপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে।
এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অভিযোগটি খতিয়ে দেখে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here