শাহজাদপুরের ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা সাইফুলের বিরুদ্ধে  ভূমি অফিসের দুটি গাছ কেটে বিক্রির অভিযোগ

0
88

জহুরুল ইসলাম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়ন ভূমি অফিসের দুটি গাছ শনিবার দুপুরে কেটে বিক্রি করেছেন কৈজুরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে। এছাড়া এ গাছ কাটার সাথে জড়িত ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ সাইফুল ইসলামের বিচার ও শাস্তির দাবী করছেন এলাকাবাসী। এ বিষয়ে কৈজুরী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান মনো সরকার, ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ হেকমত মিয়া, ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ সিদ্দিক, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আমজাদ হোসেন ও ভূমি অফিস সংলগ্ন কৈজুরী গ্রামের মোঃ আলম জানান, কৈজুরী ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলামের নির্দেশে কৈজুরী ভূমি অফিস কার্যালয়ের দক্ষিনে অবস্থিত প্রায় ১৪ ইঞ্চি ব্যাসের একটি মেহগনি গাছ গত মঙ্গলবার ও ওই একই স্থানের একই ব্যাসের একটি নিম গাছ শনিবার দুপুরে কেটে বিক্রি করেন। এ গাছ দুটি কিনে নেন কৈজুরী বাজারের কাঠ ও ফার্নিচার ব্যাবসায়ী মোঃ কামরুল ইসলাম। এ বিষয়ে কামরুল ইসলাম জানান, চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলামের নির্দেশে গাছ দুটি কাটা হয়েছে। এ বিষয়ে কৈজুরী ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহসীলদার (নায়েব) মোঃ আইয়ুব আলী বলেন, গাছ কাটার বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। তবে ইউপি চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, কৈজুরী হাটের গণ শৌচাগার (পাবলিক টয়লেট) নির্মাণের জন্য শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহার মৌখিক অনুমতিক্রমে গাছ দুটি কাটা হচ্ছে। এ বিষয়ে শাহজাদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাসুদ হোসেন বলেন, গাছ কাটার বিষয়ে আমাকে কেউ অবহিত করেনি। এছাড়া কাউকে গাছ কাটার অনুমতিও দেওয়া হয়নি। খোজ খবর নিয়ে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এ বিষয়ে কৈজুরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলামকে মুঠোফোনে জানান, তিনি কাউকে গাছ কাটার অনুমতি দেননি। কিভাবে গাছ কাটা হচ্ছে তাও তিনি জানেন না। তবে বাজার কমিটি তার কাছে এসেছিল পাবলিক টয়লেটে যাওয়ার জন্য রাস্তায় কিছু মাটি ভরাট করে দিতে। তিনি সেই কাজটি শুরু করেছেন। গাছ কাটার সাথে তিনি জড়িত নন বলে দাবী করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here