রোয়াংছড়িতে আদিবাসী কিশোরিকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে এক যুবক আটক

0
1229

হ্লাছোহ্রী মারমা রোয়াংছড়ি (বান্দরবান) প্রনিতিধি : বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে কাইন্তারমুখ পাড়া এলাকার আদিবাসী কিশোরিকে ধর্ষণে চেষ্টার অভিযোগে মো: রাকিব ইসলাম (১৯) নামে এক যুবকে আটক করেছে পুলিশ। গত (৩ মার্চ ২০২০) মঙ্গলবার রাত অনুমান ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনা সংবাদ পেয়ে রোয়াংছড়ি আর্মি ক্যাম্পে কমান্ডার ও থানার (ওসি) মো: এনামূল হক ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন। পুলিশ ও স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে ঠিকাদার উজ্জ্বল দাশের সাইটের বান্দরবান-রোয়াংছড়ি সড়কে কাইন্তারমুক পাড়া হতে বৈদ্য পাড়া যাওয়া ভাঁয়া রাস্তা নির্মাণে প্রায় দুই মাস যাবত কাজ করে শ্রমিক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। আটককৃত যুবক হলেন পটুয়াখালী জেলাধীন দশপিনা দক্ষিণ আদমপুর উপজেলায় ভরনপুর ইউনিয়নে ৭নং ওয়ার্ড দক্ষিণ আদমপুর গ্রামে বাসিন্দার মো: মুকসেদ ইসলামের ছেলে মো: রাকিব ইসলাম (১৯)। কাইন্তারমুখ পাড়া কারবারী,মংপ্রু মারমা ও ক্যশৈনু মারমা বলেন গত মঙ্গলবার রাতে ১০টা দিকে ভিক্টিমের কিশোরীটি পঞ্চম শ্রেণিতে পড়–য়া ছাত্রী নুউপ্রু মারমাকে সঙ্গী হিসেবে নিয়ে শৌচাগারে যায়। এ সময় ওঁৎ পেতে থাকার মো: রাকিব ইসলাম রাতে আধাঁরে সুযোগ পেয়ে ওই কিশোরিদের নানান ভাবে ভয় ভিত্তি প্রদর্শন করে হাত ধরে ১৪ বছরে এক কিশোরীকে শৌচাগারে পাশে থেকে অন্যত্র নিয়ে গিয়ে ধর্ষণে চেষ্টা করেন। পরে আমরা গ্রামবাসীল মেলে সামাজিক ভাবে বিচার করে অভিযুক্ত ব্যক্তি মো: রাকিবকে ৪০ হাজার টাকার জরিমানা দিয়ে মিমাংসা করে দিয়েছে। ভিক্টিমের বাবা আপ্রুমং মারমা (৪২) বলেন আমার মেয়ে মাত্র ১৪ বছর বয়স। আমার মেয়ে বাথরুমে যাওয়ার সময় মো: রাকিব ইসলাম নামে ধর্ষণ করতে চেষ্টাক করে হাত ধরে পাড়ার বাইরে নিয়ে এ ধরনে জঘন্য ঘটনা ঘটিয়েছে। আমরা গরীব ও দিন মজুরী করে খায় এবং আর্থিক না থাকায় গ্রামে সামাজিক বিচারে যা করছে, সে ভাবে মেনে নিয়েছে। তারপরও অভিযুক্ত আসামি বিরুদ্ধে সরকার পক্ষ থেকে আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করায় ধন্যবাদ জানায় এবং আসামিকে কঠোর শাস্তি কামনা করেন। রোয়াংছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: এনামুল হক ঘটনা সত্যতার স্বীকার করে বলেন কিশোরীকে ধর্ষণে চেষ্টার সংবাদ পেয়ে আসামিকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনা আরো জড়িত থাকলে তাদেরকে আইনে আওতায় আনা হবে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত মামলা রুজু করা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here