ভোলার চরফ্যাশনে উপজেলা গৃহবধুকে জোরপূর্বক ধর্ষন চেষ্টা নারী-শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনালে মামলা দায়ের

0
389
স্টাফ রিপোর্টারঃ
চরফ্যাশনের চর মাদ্রাজ ইউনিয়নের চর নাজিমউদ্দিন গ্রামের এক গৃহবধুকে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করেছে রুবেল নামের এক লম্পট। এ ঘটনায় গৃহবধু বাদী হয়ে অভিযুক্ত রুবেলকে বিবাদী করে গত ১৫ জুলাই ভোলার বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা দায়ের করে।
মামলা ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, মামলার আসামী ও গৃহবধুর স্বামীর বাড়ী পাশাপাশি। গৃহবধুর স্বামী নদীতে মাছ শিকার করে জীবিকা নির্বাহ করে বিধায় প্রায়ই নদীতে থাকেন। তাই সে বাচ্চা কাচ্চা নিয়ে স্বামীর বাড়ীতে একা থাকে। এই সুযোগে আসামী রুবেল বাড়ীতে এসে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব দিতে থাকে। গৃহবধু তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় জোর পূর্বক ইজ্জত নষ্ট করার হুমকি দেয়। পরবর্তীতে গৃহবধু ঘটনাটি স্বামীকে জানালে স্বামী আসামীর পিতা ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের নিকট অভিযোগ করে। আসামীর বাবা এলাকার প্রভাবশালি লোক হওয়ায় কেউ বিচার সালিশ করার সাহস পায় না। গৃহবধু ঘটনার তারিখ ৬ জুলাই তার গৃহপালিত হাস মুরগির জন্য খাবার কিনতে চরফ্যাশন চাওয়ার পথে আসামী রুবেল তার দোকানের সামনে কথা আছে বলে ডাকে এবং হাত ও বাহু ধরে টেনে, পাজা কোলে করে তাকে দোকানের মধ্যে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। অভিযুক্ত রুবেলের সাথে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে গৃহবধুর ডাক চিৎকারে চারদিক থেকে লোকজন জড়ো হতে থাকলে রুবেল তাকে থামানোর জন্য লোহার রড দিয়ে তার হাতে আঘাত করে জখম করে দ্রæত পালিয়ে যায়। পরে বিভিন্ন লোকজন এসে গৃহবধুকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পালিয়ে যাওয়ার সময় গৃহবধুর গলায় থাকা ১ ভরি ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়েছে বলে গৃহবধুর অভিযোগ করে।
এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ সামছুল আরেফিন জানান, আদালতে মামলা হয়েছে বলে আমি জেনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে আদালতে প্রতিবেদন দেয়া হবে।
অভিযুক্ত রুবেলের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করলে এলাকায় তাদের খুজে পাওয়া যায়নি। তাদের মোবাইলে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here