ভোলার চরফ্যাশনে অধ্যক্ষ পিটিয়ে আহত করেছে পিয়নকে

0
147
স্টাফ রিপোর্টার
ভোলা চরফ্যাশনের উপজেলা ওমরপুর গাফুরিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল হামিদের বিরুদ্ধে একই মাদ্রাসার পিয়ন জাকির হোসেনকে পিটিয়ে আহতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত পিয়নকে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার সকালে অধ্যক্ষের কক্ষে এমন ঘটনা ঘটেছে ।
চরফ্যাশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত জাকিরের শয্যা পাশে থাকা স্বজনরা অভিযোগ করেন , জাকির পিতা ওই মাদ্রাসার পিয়ন পদে কর্মরত অবস্থায় মারা যান। অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল হামিদ ৩ লাখ  টাকা ঘুষ নিয়ে ওই পদে জাকিরকে নিয়োগ দেন। দুই বছর হয়রানির পর তাকে এমপিও ভুক্ত করিয়েছেন। জাকিরের পিতার অবসর ভাতা তুলতে সকল কাগজ পত্র অধ্যক্ষের কাছে রেখেছেন। অবসর ভাতার বিল পাস করতে ৫০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে । দাবী কৃত  ঘুষ দিতে অপারগতা প্রকাশ করায়  এনিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে অধ্যক্ষ লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে পিয়ন জাকিরকে আহত করেছেন।
মাদ্রাসা ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো.আনছারুল হক বলেন ,আমি হাসপাতালে গিয়ে জাকিরকে দেখে এসেছি। অধ্যক্ষ হিসেবে তিনি কাজটি ঠিক করেননি। আমরা বিষয়টি সমাধা দেয়া চেষ্টা করছি।
ওমরপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধ এনামুল হক মাষ্টার পিয়ন জাকিরের উপর অধ্যক্ষের এমন কর্মকান্ডে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
অভিযোগের বিষয়ে জানার জন্য অধ্যক্ষের মোবাইলে একাধিক বার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য  জানা যায়নি।
চরফ্যাশন থানার ওসি মো.শামসুল আরেফীন জানান ,আমি বিষয়টি মৌখিক ভাবে জেনেছি। এবিষয়ে কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।