বান্দরবানে কম খরচে ড্রাগন চাষের লাভবান হচ্ছে চাষীরা

0
462

মংহাইথুই মারমা,বান্দরবান প্রতিনিধি: বান্দরবানে পাহাড়ে জলবায়ু এবং মাটি ড্রাগন চাষে উপযোগিতা হয়ে উঠেছে। অনেকে এখন বানিজ্যিক ভাবে শুরু করেছেন এই ফলের চাষীরা। কম খরচে বেশি লাভ হওয়ার ইতি মধ্যে সফলতা পেয়েছে অনেকে। চিম্বুক পাহাড়, বালাঘাটা,কুয়ালং,রোয়াংছড়ি, নাইক্ষ্যংছড়ি, রুমাসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার ব্যাপক ভাবে চাষ হচ্ছে ড্রাগন।

হটিকালচার থেকে ২৫-৩০ টাকা ধরে চারা কিনে নেন চাষীরা,যা ১বছরের ফল দেওয়ার উপযোগী হয়ে উঠে। আর প্রতি মণ ড্রাগন বিক্রি হয় ১৬-১৮হাজার টাকা। বান্দরবানে চিম্বুক বসন্ত পাড়ার চাষী তোয়াং ম্রো দৈনিক আজকের বিপ্লবী বাংলাদেশ একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, ২০১৬ সালে হলটিকালচার থেকে ৩শতটি চারা নিয়ে শুরু করেন ড্রাগন ফলের চাষ। অল্প খরচে বেশি ফলন কারনের আমার বাগানে এখন গাছের সংখ্যা ৩হাজার ও বেশি। তিন পাবর্ত্য জেলার ড্রাগন চাষী হিসেবে ইতি মধ্যে সুনাম ছড়িয়েছে। তিনি আরো জানান, প্রথমে ১লক্ষ ৫০হাজার মত আয় করেছি,দ্বিতীয়তা,৩লক্ষ ৫০হাজার ও এই বছরের ১৮-১৯লক্ষ টাকা পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চলতি বছরের ১২হেক্টর জমিতে চাষ হচ্ছে ২০মে.টন। চারা ব্যবসায়ী সূত্রে জানায়, বান্দরবান থেকে এই ড্রাগন চারা নিয়ে ঢাকা,সিলেট,বরিশাল ও চট্টগ্রামসহ এ রকম বিভিন্ন জেলার পাঠানো হয় আগ্রহী চাষীদের।

এ বিষয়ে কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা,মো:ওমর ফারুক জানান, ড্রাগন চাষাবাদে জৈব সার খুবই উপকারিতা রয়েছে। সাথে রাসায়নিক সারও ব্যবহারে প্রযোজ্য বলে জানিয়েছেন। রোগ বালায় তেমন হয় না এই ফলনগুলোতে,বলতে গেলে অযত্নে চাষাবাদ সফলতা আনা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here