বাঞ্ছারামপুর মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস পা‌লিত

0
47

সোহাইল আহ‌মেদ: ব্রাহ্মণবাড়িয়া বাঞ্ছারামপুর গতকাল ১ লা মে বিকাল ৪ ঘটিকা সময় উপজেলা চত্বরে শ্রমিক লীগের উদ্দ্যেগে আলোচনা সভা ও মে দিবস পালিত হয়। শ্রমিক লীগের আহব্বায়ক আ.আজিজের সভাপতিত্বের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ক্যাপ্টেন এ.বি তাজুল ইসলাম এমপি।

তি‌নি ব‌লেন আজ মহান মে দিবস, শ্রমিকের বুকের তাজা রক্ত দিয়ে অধিকার আদায়ের গৌরবময় দিন। সারাবিশ্বেই দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালন করা হয়। দিবসটি প্রতিষ্ঠার পেছনে রয়েছে শ্রমিকদের রক্তঝরা আত্মত্যাগের ইতিহাস।আমি শ্রমিক কল্যান ট্রাস্ট এর জন্য আমার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে ৫ লাখ টাক দিবো,বিত্তবান যারা আছেন তাদেরকে ও বলবো সহযোগিতা করার জন্য।

১৮৮৯ সালের ১৪ জুলাই প্যারিসে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক শ্রমিক সম্মেলনে শিকাগোর শ্রমিকদের জীবনদান এবং আন্দোলনের স্বীকৃতি দিতে পহেলা মে ‘আন্তর্জাতিক শ্রমিক সংহতি দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করে। তার পর ১৮৯০ সাল থেকে পহেলা মে শ্রমিক দিবস হিসেবে পালন করা হয়।
বাংলাদেশে এখনও শ্রমিকরা তাদের প্রাপ্য মজুরি থেকে বঞ্চিত। দেশে এখনও মজুরি বৈষমের স্বীকার শ্রমিকরা। তাই মে দিবস শুধুমাত্র আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে, শ্রমিকদের যথাযোগ্য প্রাপ্য ও সুযোগ-সুবিধা দিলেই মে দিবসের স্বার্থকতা আসবে বলে শ্রমিক সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা মনে করেন।

বিশেষ অথিতি হিসাবে উপ‌স্থিত ছিলেন
বাঞ্ছারামপুর উপজেলা আ.লীগ সভাপতি ও সাবেক যুগ্ম সচিব সিরাজুল ইসলাম,উপ‌জেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম, উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মিন্টু রঞ্জন সাহা,উপজেলা ম‌হিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস জলি আমির,উপজেলা আ.লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ করিম সাজু, উপ‌জেলা আ.লীগ প্রচার সম্পাদক ও উজানচব ইউ‌পি চেয়ারম্যান কাজী জাদিদ আল-রহমান (জনি),বাঞ্ছারামপুর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ সালাহ্ উদ্দিন চৌধুরী,যুবলীগ সভাপতি সাইদুল ইসলাম ভূইয়া(বকুল) ,সাধারণ সম্পাদক তফাজ্জল হোসেন,যুব বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল হক বাবুল, যুবলীগের সহসভাপতি বিল্লাল হোসেন,উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি মাহমুদুল হাসান ভূইয়া,
সঞ্চালনায় করেন,সৈয়দ মোহাম্মদ খোকন,রবিউল আউয়াল ও আলমগীর হোসেন,সার্বিক সহযোগিতায়,মো.তারা মিয়া ও নয়ন মিয়া,এসময় আরো উপ‌স্থিত ছিলেন, মহিলা আ.লীগ ছাত্রলীগ, যুবলীগ,সেচ্ছাসেবক লীগ,কৃষক লীগ, শ্রমিকলীগরে সকল নেতাকর্মী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here