পান্তা খেয়ে রোজা রাখা সেই সোনাবানের কাছে উপহার পাঠালেন মেরিনা জাহান কবিতা

0
45
জহুরুল ইসলাম , শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি:  ‘পান্তা খেয়ে রোজা রাখছেন সোনাবান’ এই শিরোনামে বিভিন্ন গনমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে সংবাদটি নজরে আসে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. মযহারুল ইসলামের কন্যা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতার। তিনি সঙ্গে সঙ্গে মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে অসহায় সোনাবানের কাছে উপহার সামগ্রী পাঠানোর ব্যাবস্থা করেন।
সোনাবান (৭০) সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর পৌর এলাকার বাড়াবিল মধ্যপাড়ার বাসিন্দা। সেখানে তিনি ভাইয়ের বাড়ির এক কোনে ছোট্র একটি কুরে ঘরে বাস করেন।
মেরিনা জাহান কবিতার পক্ষ থেকে এ উপহার  সামগ্রী পৌছে দেন সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী মনিরুল গনি চৌধুরী শুভ্র ও ফারুক হাসান কাহার ।
উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে, চাউল ৫০ কেজি, ডাউল ১ কেজি, পেয়াজ ১ কেজি, চিনি ১ কেজি, তেল ১ কেজি, সাবান, শাড়ি ২ টি ও নগদ অর্থ প্রদান প্রদান করা হয়।
এসময় সোনাবান বলেন, করোনার লাইগা গত দেড় মাস ধইরা খাইয়া না খাইয়া দিন কাটাইছি। প্রতিবেশিরা আগে খাওন দিতো করোনার লাইগা এহন ঠিকমত দেয়না। যেখানেই যাইতাম মাইনষে দূর দূর কইরা তাড়াইয়া দিতো। খিদার জ্বালা বড় জ্বালা। এই জ্বালায় করোনা কী আর করবো। কয়দিন আগে একজনে কিছু চাইল ডাইল, তেল দিছিলো সেগুলা কয়দিন খাইছি। অহন হেইডাও শেষ। এখন এই সদাই দিয়া কয়দিন পেট ভইরা খাইবার পারুম।
মেরিনা জাহান কবিতা বলেন, মাননীয় প্রাধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার মানবিক শিক্ষায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ও প্রফেসর মযহারুল ইসলামের পারিবারিক শিক্ষায় দিক্ষিত হয়ে করোনাকালে সোনাবানের মত মানুষের পাশে দাঁড়ানো এই মানবিক শিক্ষারই বহিঃপ্রকাশ। আমরা দেশ ও মানুষের জন্য রাজনীতি করি, মানুষ খারাপ অবস্থার মধ্যে থাকলে মানবিকতার মৃত্যু হয়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের সেই মানবিক শিক্ষাই দিয়ে থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here