নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক সম্রাট ও সন্ত্রাসী সালাউদ্দিন সালু অস্রসহ গ্রেপ্তার

0
353

 প্গরেস রিলিজ ঃ গত ২১-০৯-২০১৯ তারিখ ২৩: ৩০ ঘটিকায় নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি চৌকস টিম এস আই মিজানের নেতৃত্বে মাদক ও অস্ত্র উদ্ধারের জন্য বিশেষ অভিযানে বন্দর এলাকায় থাকাকালীন সময়ে গোপন সূত্রে সংবাদ পায় যে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত মাদক সম্রাট ও সন্ত্রাসী সালাউদ্দিন সালু(৩৬), পিতা-শফিকুল ইসলাম, গ্রাম-মদনগঞ্জ, জেলা-নারায়ণগঞ্জ অস্ত্রসহ বাগবাড়ীস্থ তাহার শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করছে উক্ত সংবাদের সত্যতা যাচাইয়ের জন্য বাগবাড়ীস্থ সালাউদ্দিনের শ্বশুরবাড়িতে হাজির হইলে পুলিশের উপস্থিতি টের পাইয়া ঘরের পিছনের দরজা দিয়ে সে পালানোর চেষ্টা করে উক্ত সময় ডিবি পুলিশ তাকে ধৃত করে এবং তাহার দেহ তল্লাশি কালে কোমরে লুঙ্গির কোচর এর মধ্যে একটি পয়েন্ট ২২ বোরের বিদেশি রিভালবার ও ০8(চার) রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়। অতঃপর বিধিমোতাবেক জব্দ তালিকা তৈরি করে উক্ত ধৃত সন্ত্রাসীকে নিয়ে আসার সময় উক্ত আসামীর সহযোগী সন্ত্রাসীরা পুলিশের কাজে বাধা প্রদান করা সহ আসামি ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে এবং পুলিশের ওপর আক্রমণ করে। আসামীরা পুলিশের ব্যবহৃত হাইস গাড়িও ভাঙচুর করে তখন পুলিশ নিজের জানমাল ও সরকারী অস্ত্র-গুলি এবং আসামির নিরাপত্তা রক্ষার্থে এসআই মিজান তাহার নামে ইস্যুকৃত সরকারি পিস্তল হইতে ০৪( চার) রাউন্ড গুলি এবং এসআই মাহফুজ তার ইস্যুকৃত সরকারী পিস্তল হইতে ০১ (এক) রাউন্ড গুলি এবং কনস্টেবল রমজান তার ইস্যুকৃত সরকারী সর্টগান হইতে ০৫ (পাঁচ) রাউন্ড রাবার বুলেট এবং কনস্টেবল হাদি তার ইস্যুকৃত সরকারী সর্টগান হইতে ০৪(চার) রাউন্ড রাবার বুলেট ফাঁকা ফায়ার করিলে তাৎক্ষণিকভাবে সন্ত্রাসীরা পালায়ন করে। উক্ত আক্রমণে এসআই মিজান, এসআই মাহফুজ এবং কনস্টেবল নাদিম আহত হয়। উক্ত বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে এবং আসামীকে রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে। এ সংত্রান্তে তার বিরুদ্ধে বন্দর থানায় ০২ টি পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে যার মামলা নং-৩৮, তারিখ-২২/০৯/২০১৯ খ্রিঃ ধারা-১৮৭৮ সালের অস্ত্র আইন(সং/০২) এর ১৯-এ এবং মামলা নং-৩৯, তারিখ-২২/০৯/২০১৯ খ্রিঃ, ধারা-১৮৬/৩৩২/৩৩৩/৩৫৩/৩৪ পেনাল কোড। এ ছাড়াও ইতোপূর্বে তার বিরুদ্ধে আরো ০৪ টি মামলা রয়েছে ০১। বন্দর থানার মামলা নং-২১, তারিখ-২৩/০৩/১৫, ধারা-মাদক দ্রব্য নিঃ আইনের ১৯(১) এর ৯(খ), ২। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মামলা নং-৩৭, তারিখ-১৬/০৮/১৬, ধারা-নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোনী/০৩) এর ৭/৩০, ৩। নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার মামলা নং-০৮, তারিখ-০১/০৬/০৬, ধারা-১৯৭৪ সনের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি, ৪। বন্দর থানার মামলা নং-৩২, তারিখ-১১/০৩/১৮ খ্রিঃ, ধারা-১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন(সংশোধনী/২০০৪) এর ১৯(১) এর টেবিল ৯(খ)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here