নাগরপুরে সাবেক চেয়ারম্যান পুত্রের হামলায় গুরুতর আহত ১

0
191
মোঃ আমজাদ হোসেন রতন, নাগরপুর(টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার ভাড়রা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে প্রিন্স  এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে।
গত ২১ মার্চ ২০২০, সকাল অনুমানিক ৮ ঘটিকার সময় ভাড়রা কাচারির ঝাড়ুদার মো. জহির উদ্দিন মিয়াকে একই গ্রামের সাবেক চেয়ারম্যান মো. কদ্দুস মিয়ার পুকুরের পাড়ে নিজের জমির আগাছা পরিস্কার করে বিশ্রাম নেয়ার সময় সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে প্রিন্স অতর্কিতভাবে মোটা বাশ দিয়ে এলোপাতাড়ি ভাবে পেটাতে থাকে। বৃদ্ধের চিৎকারে লোকজনের উপস্থিতি দেখে  প্রিন্স ঘটনাস্থল হতে পালিয়ে যায়। পরে তাকে ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার করে স্বজনরা টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালের নিয়ে যায়। আহতের অবস্থা আশংকা জনক থাকায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার পূর্ণাঙ্গ চিকিৎসা না দিতে পেরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ছাড়পত্র দেন।
সরেজমিনে দেখা যায়, জহির মিয়ার এক হাত ভেঙ্গে গিয়েছে। তার পরিবার সাংবাদিকদের জানান, বুকের হাড়,, কিডনি, মাথা সহ বিভিন্ন স্থানে আঘাতের ফলে, সে ঠিকমতো কথাও বলেতে পারছে না। বৃদ্ধ জহির জীবন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে বিছানায়, এলাকাবাসী ও আহতের পরিবার জানান, প্রিন্স একজন মাদকাসক্ত ছেলে। বৃদ্ধ জহিরকে বিনাকারণে মেরেছে। এর আগেও এরকম বেশকয়েকটি ঘটনা ঘটিয়েছে সে। গ্রামের লোকজন সবসময়ই তার সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের জন্য আতংকে থাকে। কখন যে কাকে মারে! এমন সংশয়ে এলাকাবাসী নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। তারা প্রিন্স এর দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবি করে।
এ বিষয়ে নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। জহির মিয়ার পক্ষ থেকে এবং গতকাল মঙ্গলবার রাতে সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে প্রিন্সকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়ছে নাগরপুর থানা পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here