ঠাকুরগাঁও বড়দিন উপলক্ষে রুহিয়া ক্যাথলিক চার্চে যৌতুক বিহীন ৯ টি বিয়ে সম্পন্ন।

0
197
রেজাউল ইসলাম মাসুদ, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া ক্যাথলিক চার্চে একই দিনে ৯টি বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।  গত শুক্রবার (২৭ ডিসেম্বর)  সকালে খ্রিস্টান রীতিনীতি অনুযায়ী এসব বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। রুহিয়া ক্যাথলিক চার্চের ধর্মজাজক ফাদার অন্তনী সেন তাদের আংটি ও মালাবদল করে বিয়ে দেন।
বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হওয়া ছেলে-মেয়েরা হলেন- ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ঢোলারহাট এলাকার জংলু মারিও দাসের ছেলে জীবন সেবাষ্টিয়ান দাস এবং কনে আটোয়ারী উপজেলার রাধানগর গ্রামের আকালু দাসের মেয়ে মানসি মনিকা দাস, আটোয়ারী উপজেলার কালিকাগাও গ্রামের মন্টু দাসের ছেলে পলাশ দাসের সঙ্গে কনে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার মহেশ চনদ্র রায়ের মেয়ে সনেকা রানী রায়, বর সদর উপজেলার বদেশ্বরী গ্রামের গায়তান দাসের ছেলে রতন পিউস দাস এবং কনে কালিকাপুর গ্রামের প্রিয়নাথ দাসের মেয়ে স্বপ্না মার্টিনা দাস, বর রুহিয়া মধুপুর গ্রামের অনিসেন্ট দাসের ছেলে রাফায়েল দাস এবং কনে মলানখুড়ি গ্রামের পিজুস দাসের মেয়ে বৃষ্টি আগষ্টিনা দাস, বর শিবরাম গ্রামের পুলিন চন্দ্র রায়ের ছেলে প্রদীপ রায় এবং কনে বড় বালিয়া গ্রামের রিনো দাসের মেয়ে সাগরি শিশিরিয়া দাস, বর ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের পিতর দাসের ছেলে জয় দানিয়েল দাস এবং কনে ফকদনপুর গ্রামের সুশেন রায়ের মেয়ে সোহাগী রানী রায়, বর বালাবাড়ি গ্রামের বিজয় দাসের ছেলে রুবেল দাস এবং কনে মলানখুড়ি গ্রামের রতিন দাসের মেয়ে রিংকি ক্লারা দাস, বর কলিগ্রামের অনাথ বাউরির ছেলে রিগান বাউরি এবং কনে বোধগাও গ্রামের মানুয়েল দাসের মেয়ে স্বপ্না সার্থা দাস, বর দিনাজপুরের গোলামপাড়া গ্রামের ফান্সিস মুর্মুর ছেলে নির্মল জোসেফ মুর্মু ও কনে আটোয়ারী ফকিরগঞ্জ মারিও দাসের মেয়ে পূর্ণিমা দাস।
ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বিবাহ রেজিস্ট্রেশন করা হয়। বিয়ে উপলক্ষে বাদ্যযন্ত্র বাজিয়ে দম্পতিরা মাইক্রোবাসে করে রুহিয়া ক্যাথলিক চার্চে সমবেত হয়। প্রত্যেকের আত্মীয়-স্বজন ও পরিবারের লোকজন উপস্থিত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here