চেয়ারম্যানের ভাই বলে কথা ! ৮ বছর স্কুলে না গিয়েও বেতন ভাতা উত্তোলনের অভিযোগ

0
230

জহুরুল ইসলাম, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার কৈজুরি ইউনিয়নের চরকৈজুরি গ্রামে অবস্থিত কৈজুরি উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের স্কুল শাখার সহকারী শিক্ষক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন (৪৫) দীর্ঘ ৮ বছর ধরে স্কুল না করেই বেতন ভাতা তুলছেন। তিনি ওই স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক ও কৈজুরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, শাহজাদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলামের আপন ছোট ভাই। এরই সুবাদে তিনি ঢাকার মিরপুর-১ এর শাহা আলী বাগ কলওয়ালপাড়ায় অবস্থান করে গার্মেন্টস সূতার রং করার কারখানার ব্যবসা করেন। তারপরেও তিনি ওই স্কুল শাখার সহকারী শিক্ষক পদে থেকে নিয়মিত বেতন ভাতা তুলছেন। কাগজে কলমে হাজিরা ঠিক থাকলেও তিনি কোনদিন স্কুলে উপস্থিত থাকেন না। ফলে কৈজুরি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ হারুনার রশিদ সম্প্রতি এলাকাবাসির পক্ষে ও জনস্বার্থে এ অনিয়ম দূর্ণীতির বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিসার ও দূর্ণীতি দমন কমিশনসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকালে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা,শাহজাদপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাসুদ হোসেন ও  শাহজাদপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ শাহাদাৎ হোসেন ওই প্রতিষ্ঠানে হাজির হয়ে এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করেন। উভয় পক্ষের দীর্ঘ শুনানি শেষে শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, এটা প্রাথমিক তদন্ত। এ বিষয়ে আরো তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে। তাই ৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ কমিটি আরো অধিক তদন্ত করবে। তারপরে এ বিষয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তিনি আরো বলেন, প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগের বেশকিছু সত্যতা মিলেছে।
এ বিষয়ে অভিযোগকারি মোঃ হারুনার রশিদ জানান, মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন জীবনে কখনই এ বিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্রদের ক্লাস নেননি। তিনি ঢাকার মিরপুর-১ এর শাহা আলী বাগ কলওয়ালপাড়ায় গার্মেন্টস সূতার রং করার কারখানার ব্যবসা করেন। এ প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ বড় ভাই আব্দুল খালেক আর সভাপতি অপর ভাই সাইফুল ইসলাম। এ ছাড়া তার আরো দুই ভাই এ প্রতিষ্ঠানের সহকারী শিক্ষক। ফলে এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি তাদের পারিবারিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন ঢাকায় অবস্থান করেও জালিয়াতির মাধ্যমে হাজিরা খাতায় নিজেকে উপস্থিত দেখিয়ে এ প্রতিষ্ঠান থেকে দীর্ঘ ৮ বছর ধরে নিয়মিত ভাবে বেতন ভা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here