কাশীপুরে হত্যা মামলায় আ’লীগ নেতার ছেলে দাউদ ইব্রাহিম জেলে

0
361

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি: ফতুল্লার কাশীপুরে অটোরিক্সা চালক রাব্বী মিয়া হত্যা মামলায় আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে দাউদ ইব্রাহিমসহ দুইজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। সোমবার (৪ নভেম্বর) নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট অশোক কুমার দত্তের আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন চাইলে আদালত তাদের আবেদন নাকচ করে জেলহাজতে পাঠায়। কারাগারে পাঠানো অন্য আসামী হচ্ছে মারুফ (২৮)।দাউদ ইব্রাহিম কাশীপুর সম্রাট হল এলাকার আওয়ামী লীগ নেতা ইকবাল হোসেন শেখের ছেলে। এর আগেও বেশ কয়েকটি মাদক মামলায় দাউদ ইব্রাহিম গ্রেফতার হয়।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পুলিশের এসআই সালাউদ্দিন।

একসময়ে পকেটমার আওয়ামী লীগ নেতা ইকবাল হোসেন শেখ নিজেকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সহসভাপতি, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, শেখ মনি স্মৃতি সংসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি ও মানবিক বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সভাপতি বলে পরিচয় দেয়। মূলত: ইকবাল শেখের আশ্রয়েই বেপরোয়া হয়ে উঠে দাউদ ইব্রাহিম। এলাকায় কিশোর গ্যাং তৈরি করে নানা অপরাধ সংগঠিত করতে থাকে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসার সাথেও জড়িয়ে পড়ে সে।

স্থানীয়দের দেয়া তথ্যমতে, নিহত অটোরিক্সা চালক পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করতো। দাউদ ইব্রাহিমের মাদক ব্যবসার তথ্য পুলিশকে দেয়ার জের ধরেই রাব্বীকে দাউদ ও মারুফ মিলে হত্যা করেছে।২০১৮ সালের ২৬ মার্চ রাতে ফতুল্লার কাশীপুর এলাকায় মাদক ব্যবসার দ্বন্দ্বকে কেন্দ্র করে রাব্বী মিয়াকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত রাব্বী কাশীপুর আদম বাড়ি এলাকার নাসির হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় নিহত রাব্বীর বাবা বাদী হয়ে ফতুল্লা থানায় মামলা করেন। মামলা নং-৮৪ (৩)১৮।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here