ঈদের ছুটিতে বাঞ্ছারামপুর ইএনএস সেতু, মেঘনার তীরে দর্শনার্থীদের ঢল

0
449

সোহাইল আহ‌মেদ: মেঘনা শাখা নদীর উপর নির্মিত দৃষ্টিনন্দন এই সেতুটি মন কাড়বে পর্যটকদের। চর‌শিবপুর টু ইছাপুর মেঘনা নদীর উপর নির্মিত হ‌তে যা‌চ্ছে এই সেতু। প্রতিদিন হাজারো মানুষ শুধু বেড়াতে আসেন এই সেতু মেঘনার তী‌রে। এই সেতুর আরেকটি আঞ্চলিক নাম সেলফি ব্রীজ। দুই পাশে রয়েছে ফুচকা, চটপটি, চানাচুর ইত্যাদি ভাসমান খাবারের দোকান। এখা‌নে লোকজন এ‌সে সেলফি তোলাতে ব্যস্ত থাকেন হাজারো তরুণ-তরুণী।

ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়া বাঞ্ছারামপুর উপ‌জেলার চর‌শিবপুর মেঘনা নদীর তীর এখন ভ্রমণপিপাসুদের জন্য অন্যতম আকর্ষণীয় স্থান হয়ে উঠেছে। পবিত্র ঈদ-উল ফিতরের ছুটিতে উপ‌জেলার চর‌শিবপু‌রে মানুষের ঢল নেমেছে। ঈদের দিন দুপুর থেকে বাড়তে থাকে লোকজনের সংখ্যা। ঈদের পর দিন বেড়ে যায় বহুগুণে।

বুধবার (৫ জুন) পবিত্র ঈদ-উল ফিতরে উদযাপিত হলেও ঈদের পঞ্চম দিন (সোমবার) পর্যন্ত চর‌শিবপু‌রের বিনোদন কেন্দ্রগুলো দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখর ছিল। পরিবার-পরিজন ও প্রিয় জনের সাথে ঈদের ছুটি ভাগাভাগি করতে যুবক-যুবতীসহ যে কোন বয়সের দর্শনার্থীরা ব্রাহ্মণবা‌ড়িয়া বাঞ্ছারামপু‌র চর‌শিবপুরের বিভিন্ন বিনোদন স্পষ্টগুলো ঘুরে বেড়িয়েছেন।

উপ‌জেলার সবচেয়ে বেশি দর্শনার্থী দেখা গেছে, দেশের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন কেন্দ্রের মধ্যে অন্যতম চর‌শিবপুর ইএনএস সেতু যার আঞ্চ‌লিক নাম সেল‌ফি ব্রিজ এই স্থানটি দীর্ঘ দিন যাবৎ দেশ-বিদেশের পর্যটকদের দৃষ্টি কেড়ে নিয়েছে। ঈদের ছুটি উপলক্ষে সেখানেও সকাল-সন্ধ্যা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত দর্শনার্থীদের ঢল নামে।
অনেকেই আছেন, যাদের বাঞ্ছারামপু‌রেই জন্ম, বাঞ্ছারামপুর-ই বসবাস এমন অনেক বাঞ্ছারামপুরবাসী কর্মব্যস্ততায় আজও দেখেনি উপ‌জেলার আলোচিত পর্যটন এলাকা চর‌শিবপুর। কিন্তু ঈদের ওই ছুটিকে কাজে লাগানোর পাশাপাশি নিজের বিনোদনের স্থান হিসে‌বে বেঁছে নিয়েছেন ইএনএস মেঘনার তীর‌কে।

কথা হয় কুমিল্লার হোমনা উপজেলার বাসিন্দা রা‌ফিয়া খাতু‌ন (নিপা) এর সাথে। চল্লিশোর্ধ্ব ওই নারী জানান, ছোট বেলা থেকেই চর‌শিবপু‌রের নাম শুনেছি। কিন্তু কখনও আসা হয়নি। স্কুল-কলেজে পড়া অবস্থায় পারিবারিক কঠোর নজরদারিতে সেই সুযোগ হয়নি। বিয়ের পর ঢাকাতেই বসবাস। সংসার জীবনও অনেক কেটে গেলো আজ যাব, কাল যাব বলে আর আসা হয়নি। এবার আগে থেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ঈদের ছুটিতে স্বামী-ছেলে-মেয়ে নিয়ে বাপের বাড়ি যাব এবং সেখান থেকে চর‌শিবপুর যাব। বলতে গেলে অনেক চেষ্টার পর আজ (র‌বিবার) এসেছি। দেখে অনেক ভাল লাগলো।

প‌রে কথা হয় মো: জা‌কির হো‌সেন মাস্টার এর সা‌থে তি‌নি ব‌লেন চাক‌রি ক‌রি নর‌সিং‌দী কিন্তু মনটা সবসময় থা‌কে আমা‌দের গ্রা‌মের ইএনএস সেল‌ফি সেতু মেঘনা তী‌রে। বা‌ড়ি‌তে যতদিন থা‌কি অ‌নেকটা সময়ই এ‌দি‌কে ঘু‌রে বেড়াই। কোনদিন ব্যস্ততার কার‌ণে য‌দি না আস‌তে পারি ম‌নে হয় অ‌নেক‌দিন যাবৎ ঐ স্থান‌টি দে‌খিনা। আম‌দের গ্রা‌মে অন্য এলাকা থে‌কে লোকজন ঘু‌রে বেড়া‌তে আ‌সেন এগুলো দে‌খে অ‌নেক ভাল লা‌গে তাই ঈ‌দের ছু‌টির বে‌শির ভাগ সময়টা এ‌দি‌কেই কাটা‌তে চাই।

Ad

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here