সেন্টু’র টেলিছবি ‘ন্যায় বিচারক’-এ সাদেক বাচ্চু ও খালেদা আক্তার কল্পনা

0
152

বিপ্লবী বাংলাদেশ : শনিবার হতে নারায়ণগঞ্জ বন্দরের সাবদী এলাকার বিভিন্ন লোকেশনে শুরু হয়েছে টেলিছবি ‘‘ন্যায় বিচারক’’এর চিত্রগ্রহণ। সাব্বির আহমেদ সেন্টু’র চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় টেলিছবি’র নির্দেশণার সহায়তায় রয়েছেন নাট্য নির্মাতা এম আর হায়দার রানা।

প্রথম দিনের চিত্রগ্রহণে অংশ নেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের শক্তিমান অভিনেতা সাদেক বাচ্চু,খালেদা আক্তার কল্পনা,সরল হাসমত,নাট্য ব্যাক্তিত্ব তোতা,চলচ্চিত্রভিনেতা হোসেন,মীর আনোয়ারহোসেন,আনোয়ারুল,মাসুম,সুমন,খবির,খালেদ,উত্তম ও ছোট সাব্বির। এছাড়া টেলিছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন

সিরাজ,মীম,সানজিদা,সুইটি,জয়,পপি,সাইফুল,রোমেছ,সাইদুর,মোস্তফাসহ আরো অনেকে। গল্পটিতে গ্রামবাংলার পটভূমির সাথে মিল রেখে একজন নীতিবান চেয়ারম্যানের ন্যায় বিচারের বিভিন্ন কর্মকান্ড তুলে ধরা হয়েছে। নিজ এলাকার মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়ে তাদের ভোটের মর্যাদা রক্ষা এবং অপরাধী নিজের সন্তানকেও ছাড় না দিয়ে ন্যায় বিচার করার বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে এটিতে।

টেলিছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে অভিনেতা সাদেক বাচ্চু বলেন,বর্তমান সময়ে এ ধরণে তথ্যসমৃদ্ধ ছবি খুব একটা চোখে পড়েনা। লেখক-পরিচালক সাব্বির আহমেদ সেন্টু’র টেলিছবিতে সেই ঘাটতিটুকু থাকবেনা বলে আমি আশাবাদী। তবে সাব্বির আহমেদ সেন্টু’র ছবিতে কাজ করতে খুবই স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করেছি আমি এই ছবিটির ব্যাপক সাফল্য কামনা করছি।

একই সুরে খালেদা আক্তার কল্পনা বলেন,সাব্বির আহমেদ সেন্টু নিঃসন্দেহে একজন গুনী পরিচালক। কাজের মাধ্যমে সাব্বির সেন্টু অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবে বলে আমি বিশ্বাস করি। তার ছবিতে কাজ করে খুব ভাল লেগেছে। তার যে কোন কাজে আমাদেরকে স্মরণ করলে আমরা ছুটে আসবো ইনশাল্লাহ। আমি টেলিছবিটির সফলতা প্রত্যাশা করছি।

হোসেন,আনোয়ারুল,মাসুম,সুমন,খবির,খালেদ,উত্তম ও ছোট সাব্বির। এছাড়া টেলিছবিতে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন সিরাজ,মীম,সানজিদা,সুইটি,জয়,পপি,সাইফুল,রোমেছ,সাইদুর,মোস্তফাসহ আরো অনেকে। গল্পটিতে গ্রামবাংলার পটভূমির সাথে মিল রেখে একজন নীতিবান চেয়ারম্যানের ন্যায় বিচারের বিভিন্ন কর্মকান্ড তুলে ধরা হয়েছে।

নিজ এলাকার মানুষের ভোটে নির্বাচিত হয়ে তাদের ভোটের মর্যাদা রক্ষা এবং অপরাধী নিজের সন্তানকেও ছাড় না দিয়ে ন্যায় বিচার করার বিষয়টিও তুলে ধরা হয়েছে এটিতে। টেলিছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে অভিনেতা সাদেক বাচ্চু বলেন,বর্তমান সময়ে এ ধরণে তথ্যসমৃদ্ধ ছবি খুব একটা চোখে পড়েনা। লেখক-পরিচালক সাব্বির আহমেদ সেন্টু’র টেলিছবিতে সেই ঘাটতিটুকু থাকবেনা বলে আমি আশাবাদী। তবে সাব্বির আহমেদ সেন্টু’র ছবিতে কাজ করতে খুবই স্বাচ্ছ্যন্দবোধ করেছি আমি এই ছবিটির ব্যাপক সাফল্য কামনা করছি।

একই সুরে খালেদা আক্তার কল্পনা বলেন,সাব্বির আহমেদ সেন্টু নিঃসন্দেহে একজন গুনী পরিচালক। কাজের মাধ্যমে সাব্বির সেন্টু অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারবে বলে আমি বিশ্বাস করি। তার ছবিতে কাজ করে খুব ভাল লেগেছে। তার যে কোন কাজে আমাদেরকে স্মরণ করলে আমরা ছুটে আসবো ইনশাল্লাহ। আমি টেলিছবিটির সফলতা প্রত্যাশা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here